দোষ না করেও যেসকল বলিউড সেলিব্রিটি ট্রলের শিকার হন!

দোষ না করেও যেসকল বলিউড সেলিব্রিটি ট্রলের শিকার হন!

পাবলিক ফিগার হওয়া সব সময় আনন্দের নয়। যদিও প্রচুর খ্যাতি এবং আর্থিক নিশ্চয়তা রয়েছে, তবুও তাদের প্রচুর মানসিক অশান্তির মুখোমুখি হতে হয়। যা তাঁদের মানসিক স্বাস্থ্যকে অনিশ্চয়তায় ফেলে। ইন্টারনেটের এ যুগে তাদের প্রতিটি পদক্ষেপই জনসাধারণের সামনে চলে আসে। অর্থাৎ তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন বলে আর কিছু থাকেনা। যা তাদের জন্য অত্যন্ত বিরক্তিকর হয়ে যায়। একনজরে দেখে নেওয়া যাক বলিউডের কিছু সেলিব্রিটিকে, যারা ট্রলের শিকার হন।

সোনাম কাপুর

ছবিঃ সংগৃহীত

সোনাম হলেন এমন এক অভিনেত্রী যিনি নিয়মিত সমস্ত ভুল কারণে শিরোনাম হন। তিনি যখন ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তখন এটি তার জন্য নিয়মিত ঘটনা ছিল। কয়েক বছর ধরে তিনি তা মোকাবেলা করারও কৌশল শিখেছেন। তারকাকন্যা থেকে শুরু করে তার ফ্যাশন সেন্স সহ অনেক বিষয় নিয়েই তিনি ট্রলের শিকার হন। কেউ কেউ আবার তার অভিনয়ের দক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন।

সানি লিয়ন

ছবিঃ সংগৃহীত
প্রথম থেকেই সানি তার অভিনীত অশ্লীল ভিডিওতে অভিনয় করার কারণ নিয়ে খোলামেলাভাবে কথা বলেছেন। তবুও জনগণ তাকে অত্যন্ত নির্দয়ভাবে ট্রল করে এবং যুবসমাজ নষ্ট করার জন্য তাকে দোষ দেয়।
তার সাথে বিভিন্ন সময়েই নানান অসম্মানজনক আচরণ করা হয়েছিল। তিনি সাহসের সাথে তা মোকাবেলা করে পর্নস্টার থেকে ধীরে ধীরে বলিউডের অংশ হয়ে উঠলেন।
অভিষেক বচ্চন
ছবিঃ সংগৃহীত
নিজের কোনও দোষের জন্য নয়, জুনিয়র বচ্চনকে কিংবদন্তি অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন পুত্র বলে নির্মমভাবে ট্রল করা হয়। তিনি কেন তার পিতার মতো সফল নন, এটিই তার দোষ! বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রায়কে বিয়ে করেও তিনি কথা শুনেন। “বানরের গলায় মুক্তার গলা”, এমন কথাও শুনতে হয় তাকে। আবার অনেকে তার উপার্জন নিয়ে প্রশ্ন তোলে এবং তার পাশে একজন সফল বাবা ও স্ত্রী থাকার কারণে তাকে ‘ভাগ্যবান’ বলে। অভিষেক বচ্চন বেশিরভাগ সময় মাথা ঠাণ্ডা রাখেন এসব বিষয় নিয়ে।
আনুশকা শর্মা
ছবিঃ সংগৃহীত

নিজ যোগ্যতায় আনুস্কা অভিনয় জগতে শক্ত অবস্থান করে নিয়েছেন। তার ফ্যান-ফলোয়ারের সংখ্যাও অনেক। তিনি ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে বিয়ে না করা পর্যন্ত সবার পছন্দের ছিলেন। যখন ভারত একটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ হেরেছিল তখন সে ফ্যানদের কাছ থেকে মন্দ কথা শুনতে হয়েছেলো, যা তাকে অনেক কষ্ট দিয়েছে। এবং ক্রিকেট ভক্তরা কোহেলির খারাপ খেলার জন্য আনুস্কাকে দোষারোপ করেছিল। এমনকি অনেকেই ভবিষ্যতের খেলাগুলোতে তাকে নিষিদ্ধ করতে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে আহ্বান করেছিলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.