ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনা টিকা দেওয়া হবে ৭ আগস্ট থেকে

ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনা টিকা দেওয়া হবে ৭ আগস্ট থেকে

ডেস্ক রিপোর্টঃ দেশে বেড়েই চলছে করোনা ভাইরাসের প্রভাব, গ্রাম থেকে গ্রামে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরস। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য প্রতিষেধক টিকা প্রয়োগের উপর গুরুত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। এরই অংশ হিসাবে সকল ইউনিয়ন পর্যায়ে শুরু করতে যাচ্ছে টিকাদান কর্মসূচী। আগামী ৭আগস্ট থেকে শুরু হবে  ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকাদান কর্মসূচী।

২৭ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে  করোনা নিয়ন্ত্রণে করণীয় ঠিক করতে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকটি আসাদুজ্জামান খান কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আগামী ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) দেখিয়ে মিলবে করোনা প্রতিরোধক টিকা। এর আগে আমাদের কাজ হল দেশের ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকা কেন্দ্র স্থাপন করা। যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তাদের বিশেষ পদ্ধতিতে রেজিস্ট্রেশনের আওতায় এনে টিকা দেওয়া হবে। এ কাজের সঙ্গে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী এবং ধর্মীয় নেতাদের সম্পৃক্ত থাকতে হবে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘সম্মুখসারির পরিবারের সদস্য, যাদের বয়স ১৮ বছর, তারা সবাই টীকা পাবেন। যাদের বয়স ৫০এর বেশি তারা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। কিন্তু এদের মধ্যে টিকা নেননি ৯০ শতাংশ। ৫০ এর উপরে বয়স সকল নাগরিকে টিকার আওতায় আনা হবে।

কঠোর বিধিনিষেধ যা চলছে তা চলমান থাকবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত। সবাইকে মাস্ক পরতেই হবে। স্বাস্থ্যবিধি মানতেই হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.